মানুষ যায়-আমারা নেই, স্বাস্থবিধি বুঝিনা

ছবি: সংগৃহীত

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম, ঢাকা : দেশের কোথাও এখন স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই। গণপরিবহনে যাত্রী বহনে মানা হচ্ছে না সামাজিক দূরত্ব বিধি।

এছাড়া মাস্ক ব্যবহারে উদাসীন অধিকাংশ যাত্রী। শনাক্তের হার কমে আসায় মানুষের ভীতি কেটে গেছে।এখন সবকিছুই যেন স্বাভাবিক।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, রাস্তায় স্বাভাবিক নিয়মে চলা ফেরা করছেন মানুষ। পথচারীর অধিকাংশের মুখে মাস্ক নেই। কেউবা থুতনিতে মাস্ক নামিয়ে চলাফেরা করছেন।

অধিকাংশ গণপরিবহনে আসনের অতিরিক্ত যাত্রী দাঁড়িয়ে নেয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধির কোনবালালই নেই, নেই প্রশাসন, সিটি করপোরেশন কিংবা দায়িত্বশীল সংস্থার কোনও তৎপরতা।

অনেকে মনে করছেন, করোনা পরিস্থিতি আগের চেয়ে অনেক নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। তাই রাস্তাঘাটে মানুষের উপস্থিতি লক্ষণীয়।

মো.পুরের বাসিন্দা রবিউল ইসলাম বলেন, মানুষ জীবিকার তাগিদে বাইরে বের হচ্ছে, তবে সচেতনতার বিষয়টি অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে।
মো.পুর বিআরটিসি বাসস্টেশনে বাসযাত্রী সাইফুল ইসলাম বলেন, এখন রাজধানীর সাধারণ মানুষের চলা ফেরা দেখলে মনে হয় না, দেশে করোনা বলতে কিছু আছে। দেখা যায় বাসের ভেতরে অনেকেই মাস্ক খুলে বসে থাকেন। এক্ষেত্রে মানুষকে নিজেদেরই সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

নগরীতে যত আসন তত যাত্রী ভিত্তিতে গণপরিবহন পরিচালনা করার কথা থাকলেও এখন দাঁড়িয়ে যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে। এ কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে না। তাছাড়া অধিকাংশ যাত্রীর মুখে মাস্ক থাকে না।

এদিকে আসন পূর্ণ হওয়ার পরও যাত্রী তোলা হচ্ছে বাসে। করোনা সংক্রমন সম্পর্কে জানতে চাইলে বাসের কনট্রাক্টর বলেন, মানুষ যায়, আমারা নেই, স্বাস্থবিধি বুঝিনা। আপনি বুঝলে যাইয়েন না।

তবে সচেতন মানুষের আশঙ্কা, এভাবে চলতে থাকলে করোনার সংক্রমণ আবারও বেড়ে যেতে পারে।