ভারতকে রুখে দিল বাংলাদেশ

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম, ক্রীড়া ডেস্ক : সাফ আসরে  বাংলাদেশের সাফল্য-ব্যর্থতা নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। গত চারটি সাফ আসরে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়া জামালদের পক্ষে কেইউ হয়তো বাজি ধরতে পারেননি।

সেই বাংলাদেশ চমকে দিয়েছে এবার। দশজনের দলে পরিণত হয়েও ভারতের সঙ্গে ড্র করেছে। যা জয়ের সমতুল্য বটে। সোমবার মালদ্বীপের মালে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ভারতকে রুখে দিয়েছেন জামাল ভূঁইয়া-সাদরা। ১-১ গোলে ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা।

ম্যাচের শুরু থেকে ভারতকে আটকে রেখেই খেলতে থাকেন বাংলাদেশের ফুটবলাররা। ম্যাচের ২৫ মিনিটে জামালের ফ্রি কিক সাদ উদ্দিনের হেড বক্সের মধ্যে পড়ে। তপু ও তারিক লাফিয়েও পোস্টে রাখতে পারেননি।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে ভারতীয় আক্রমণের ধারও। ফলস্বরূপ ম্যাচের ২৬ মিনিটে ভারতকে এগিয়ে দেন অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী। বার বার যার কাছে হেরেছে বাংলাদেশ।

উদান্ত সিংয়ের বাড়ানো বলে গোল করেন ভারতীয় এই তারকা। বাংলাদেশের ডিফেন্ডার ইয়াসিন ঠিকমতো মার্কিং করতে পারেননি তাকে। এই গোলটি আসে ভারতের প্রতি আক্রমণে।

২৮ মিনিটে মতিনের বাড়ানো বলে গোলের সুযোগ তৈরি করে বাংলাদেশ। বিপলুর নেওয়া শট পোস্টের একটু বাইরে দিয়ে যায়। ৩০ মিনিটে ম্যাচে সমতা আনার সুযোগ পায় বাংলাদেশ।

জামালের নেওয়া ফ্রি কিক তপু হেড করতে পারেননি। ইয়াসিন হালকা মাথায় লাগালেও বল পোস্টে রাখতে পারেননি। মিনিট আটেক পর ম্যাচের অন্যতম সেরা আক্রমণ ছিল লাল সবুজ জার্সি ধারীদের।

মতিন মিয়া ও সাদ উদ্দিনের সমন্বয়ে বাড়ানো বলে বিপলুর অনটার্গেট শট ভারতের গোলকিপার গুরপ্রিত সিং দুর্দান্তভাবে রক্ষা করেন। হাল ছাড়েনি বাংলাদেশ।

ভারতের বিপক্ষে সমান তালে লড়ে গেছেন জামাল ভূঁইয়ারা। ৫৪ মিনিটে ভারতের ফরোয়ার্ড লিস্তন কোলাকোকে আটকে রাখতে গিয়ে অবৈধভাবে ফেলে দেন বিশ্বনাথ ঘোষ।

সৌদি আরবের রেফারি আলশামরানি লাল কার্ড দেখিয়ে তাকে মাঠ থকে বের করে দেন। দশজনের দলে পরিনত হওয়া বাংলাদেশ ফের জীবন-মরণ লড়াইয়ে অবতীর্ণ হয়। তার সুফলটাও পাওয়া গেল ম্যাচের ৭৪তম মিনিটে। ইয়াসির আরাফাতের গোলে সমতা ফেরায় বাংলাদেশ।

অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার কর্নার কিক থেকে তারিক কাজীর হেড। সেই উড়ে আসা বলে দৌড়ে এগিয়ে গিয়ে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন ইয়াসিন আরাফাত (১-১)।