স্পেনে ভয়ঙ্কর আগ্নেয়গিরির অগ্নুপাত ; বিস্ফোরণের শঙ্কা

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : স্পেনে আগ্নেয়গিরির অগ্নুপাত ভয়ঙ্কর রূপ নিয়েছে। লা পামা দ্বীপের উত্তপ্ত লাভা পৌঁছেছে আটলান্টিক মহাসাগরে। এতে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ছে। বিস্ফোরণের শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

বিবিসি জানায়, আটলান্টিক মহাসাগরের প্লেয়া নুয়েভা এলাকার পানিতে আগ্নেয়গিরির গরম লাল লাভা গিয়ে পড়ায় সেখান থেকে বাষ্পের ঘন সাদা মেঘ উড়তে দেখা যাচ্ছে।

এ থেকে রাসায়নিক বিক্রিয়া ঘটে মানুষের চোখ এবং ত্বকে জ্বালাপোড়া এমনকী শ্বাস নেওয়ার সমস্যাও হতে পারে।

স্পেনের ক্যানারি দ্বীপে গত ১৯ সেপ্টেম্বরে জেগে ওঠে কুমব্রে ভিয়েজা আগ্নেয়গিরি। তখন থেকে এ পর্যন্ত উত্তপ্ত লাভায় ধ্বংস হয়েছে শত শত ঘরবাড়ি। বিস্তীর্ণ এলাকা লাভার গ্রাসে চলে যেতে থাকায় উপদ্রুত এলাকা থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে প্রায় ৬ হাজার মানুষকে।

বুধবার ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কোপারনিকাস সার্ভিস এক হিসাব দিয়ে বলেছে, লাভা ২৬৭ হেক্টর (২.৭ স্কয়ার মাইল) এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে এবং মহাসাগরে গিয়ে পড়ার পথে ৬৫৬ টি ঘরবাড়ি বিলীন হয়েছে।

মঙ্গলবার উত্তপ্ত এই লাভা আটলান্টিক মহাসাগরে গিয়ে পড়ে বলে এক টুইটে জানিয়েছে ক্যানারি দ্বীপের আগ্নেয়গিরি বিষয়ক ইন্সটিটিউট (ইনভলক্যান)। স্থানীয় টিভিতে সম্প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, লাভার নদী গিয়ে সাগরের পানিতে পড়ে বিপুল পরিমাণ বাষ্প এবং গ্যাস সৃষ্টি করছে।

তাছাড়া, পানিতে লাভা মিশে বিস্ফোরণ ঘটা এবং এতে উপকূলরেখা ভেঙে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ক্যানারি দ্বীপের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ৬শ মিটার চওড়া লাভার স্রোত কিছু এলাকার জমি পুড়িয়ে দিয়েছে।

ফুটন্ত লাভা সমুদ্রে মেশায় গবেষকদের আশঙ্কা, এতে মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতি হবে সামুদ্রিক প্রাণীদের। ঘটতে পারে পরিবেশের বড় বিপর্যয়। এরই মাঝে নোনা পানি আর লাভার সংমিশ্রণে গোটা এলাকায় বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এ থেকে রক্ষা পেতে উপকূলের কাছের বাসিন্দাদেরকে ঘরে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং বাড়ির দরজা, জানালা সব টেপ এবং ভেজা তোয়ালে দিয়ে বন্ধ করে রাখতে বলা হয়েছে।

স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ বলেছেন, তিনি লা পামা দ্বীপের অধিবাসীদের জন্য ত্রাণ সমন্বয় করতে সেখানে যাবেন।