লকডাউন ; ঝুকি নিয়ে ঢাকা ছাড়ছে মানুষ

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম,

ঢাকা : দেশে সোমবার থেকে কঠোর লকডাউন দিচ্ছে সরকার ।  তাই নানাভাবে রাজধানী ছাড়ছে মানুষ। গন্তেব্য যাচ্ছেন সিএনজি অটোরিক্সা, মাইক্রোবাস,মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন ছোট যানবাহনে। ট্রাক ও পিকআপের যাত্রী হচ্ছেন অনেকে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সোমবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে সীমিত পরিসরে বিধিনিষেধ এবং বৃহস্পতিবার থেকে পুরোপুরি লকডাউন চলবে সারা দেশে।

ইতোমধ্যেই ত্রিশে জুন মধ্যরাত পর্যন্ত ঢাকার পার্শ্ববর্তী সাতটি জেলায় লকডাউন কার্যকর থাকায় দূরপাল্লার বাস ঢাকায় আসা যাওয়া না করতে পারলেও বন্ধ করা যায়নি ঢাকামুখী এবং ঢাকা থেকে বের হওয়া মানুষের ঢল।

তবে শুক্রবার রাতে সরকারের তরফ থেকে সোমবার থেকে কঠোর লকডাউনের কথা বলার পর ঢাকামুখী মানুষের ভিড় কমে ঢাকা ছাড়া মানুষের ভিড় বেড়েছে।

কর্তৃপক্ষ বলেছে জরুরি পণ্যবাহী ব্যতীত সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকবে । শুধু অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসা সংক্রান্ত কাজে যানবাহন চলাচল করতে পারবে।

এর বাইরে জরুরি কারণ ছাড়া বাড়ির বাইরে কেউ বের হতে পারবে না বলে জানানো হয়েছে। গণমাধ্যম এর আওতাবহির্ভূত থাকবে।

এ ঘোষণার পর শনিবার ভোর থেকেই ঢাকা ছাড়ার হিড়িক শুরু হয় । পিকআপ ভ্যান, সিএনজি অটোরিকশা কিংবা ভ্যানগাড়ির মতো স্থানীয় পরিবহন দিয়ে ফেরিঘাটে পৌঁছাচ্ছে মানুষ।

মুন্সীগঞ্জের আবুল হোসেন বলেন লকডাউনের কারণে জেলার প্রবেশমুখসহ নানা জায়গায় চেকপোস্ট রয়েছে। তবে  মানুষ হেঁটে চেকপোস্ট এলাকা অতিক্রম করে । পরে অন্য যানবাহনে ছুটছে ফেরিঘাটের দিকে।

মুন্সীগঞ্জের মাওয়ায় শিমুলিয়া ফেরিঘাট দিয়ে দক্ষিণাঞ্চলের অন্তত একুশটি জেলার মানুষজন যাতায়াত করে। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ইতোমধ্যেই বেশ কিছু জেলায় আলাদাভাবে লকডাউন দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। রোববার ১১৯ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।