দিল্লিতে কৃষক বিক্ষোভ, ইন্টারনেট বন্ধ

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম,

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

দিল্লিতে কৃষক বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। নতুন কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে বিক্ষােভ সমাবেশ অব্যাহত রয়েছে অনেক দিন ধরে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে বলে গণমাধ্যমে খবর এসেছে। এদিকে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে দিল্লির বহু জায়গায় ইন্টারনেট পরিষেবা এবং মেট্রো স্টেশন বন্ধ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

দিল্লি-এনসিআর এলাকায় ইন্টারনেট পরিষেবা মধ্যরাত পর্যন্ত ছিন্ন থাকবে। যার প্রভাব পড়বে সিংঘু, গাজিপুর, টিকরি সীমান্ত, মুবারকা চক, নাংলোইয়ে। ট্রাক্টর মিছিল মঙ্গলবার সকাল থেকেই ছিল উত্তেজনাপূর্ণ। সেখান থেকে তা পুরোপুরি অশান্ত চেহারা নেয়। রাজধানীর একাধিক জায়গায় প্রতিবাদী কৃষক এবং পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে।

এর মধ্যেই মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যে‌ অন্তত ২০টি ট্রাক্টর ঢুকে পড়ে লাল কেল্লা চত্বরে। সেখানে জাতীয় পতাকার পাশেই আন্দোলনকারীরা একটি খুঁটিতে পুঁতে দেয় আন্দোলনের নিশান— কৃষক সংগঠনের একটি পতাকা। তখনই পুলিশের লাঠিচার্জে দুপক্ষে শুরু হয় সংঘর্ষ।

কৃষকদের ট্র্যাক্টর মিছিল ঘিরে সংঘর্ষের মধ্যে এক কৃষক নিহতও হয়েছে। পুলিশের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ চলাকালে ট্র্যাক্টরটি উল্টে তার মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

তবে কৃষকদের অভিযোগ বিক্ষোভে পুলিশ গুলি চালিয়েছে। ট্র্যাক্টরে সেই গুলি লাগে। আর তাতেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক্টর উল্টে তার নীচে চাপা পড়ে মৃত্যু হয় ওই কৃষকের। ওদিকে, রয়টার্স বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, লাল কেল্লায় সংঘর্ষে অন্তত ৫ পুলিশ এবং তিন বিক্ষোভকারী আহতও হয়েছেন।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত ব্যর্থ হয়েছে। লালকেল্লা থেকে কৃষকদের সরানোর পর, নতুন করে ট্র্যাক্টরে আরও প্রতিবাদী কৃষকরা এসে ভিড় করেন। বক্ষোভ সামলাতে হিমশিম খেতে হয়েছে পুলিশকে।

গত ২৬ নভেম্বর থেকে দিল্লি সীমান্তে প্রতিবাদ করছেন কৃষকরা। তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবি তাদের। প্রথম থেকেই তাদের পাশে রয়েছে কংগ্রেস সহ বিরোধী দলগুলো।