তৃতীয় দিন বড় লিডের পথে অস্ট্রেলিয়া

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম,

স্পোর্টস ডেস্ক: ২ উইকেটে রান ছিল ১১৭। সেই ভারতই কিনা অলআউট হয়ে গেল মাত্র ২৪৪ রানে! অর্থাৎ, পরের ১২৭ রান তুলতে ৮ উইকেট হারিয়েছে আজিঙ্কা রাহানেরা। আসলে সিডনি টেস্টে বল-ব্যাটে অন্যরকম অস্ট্রেলিয়াকে পাওয়া যাচ্ছে। প্রথম ইনিংসে ৩৪৪ রান করা স্বাগতিকরা পায় ৯৪ রানের লিড।

আর তৃতীয় দিন শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নেমে ২ উইকেটে ১০৩ রান করে টিম পেইনরা লিড বাড়িয়ে নিয়েছে ১৯৭ রানে। আগের দুই টেস্টে ব্যাটিংয়ে ভীষণ ভুগতে হয়েছে চলতি সিডনি টেস্টেও যে খুব একটা স্বস্তি ছড়িয়েছে, তাও না।

স্টিভেন স্মিথের সেঞ্চুরি ও লাবুশেনের একটু জন্য সেঞ্চুরি মিস করা ইনিংস বাদে কেউই তেমন কিছু করতে পারেননি। দ্বিতীয় ইনিংসেও জ¦লে উঠেছেন এই দুই ব্যাটসম্যান। তাদের ব্যাটে ভর করে বড় লিডের পথে অস্ট্রেলিয়া।

ভারতকে ২৪৪ রানে অলআউট করে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা অস্ট্রেলিয়া বিপদে পড়ে। ৩৫ রানের মধ্যে হারায় দুই ওপেনারকে। প্রথম ইনিংসে ৬২ রান করলেও দ্বিতীয় ইনিংসে পুরোপুরি ব্যর্থ উইল পুকোভস্কি। ১০ রান করে মোহাম্মদ সিরাজের শিকারে পরিণত হন এই তরুণ।

খানিক পর তার পথে হাঁটা দেন অভিজ্ঞ ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার। চোট কাটিয়ে প্রথম ইনিংসের পর এবারও হতাশ করলেন মাত্র ১৩ রানে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে।

ওই জায়গা থেকে আবারও দাঁড়িয়ে গেছে স্মিথ-লাবুশেন জুটি। প্রথম ইনিংসে দুজনই খেলেছেন দারুণ দুটি ইনিংস। দ্বিতীয় ইনিংসেও তাদের হাতে এগিয়ে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। হাফসেঞ্চুরি থেকে ৩ রান দূরে থাকতে তৃতীয় দিন শেষ করেছেন লাবুশেন।

৬৯ বলে খেলা হার না মানা ৪৭ রানের ইনিংসটি সাজিয়েছেন ৬ বাউন্ডারিতে। তার সঙ্গে ২৯ রান নিয়ে চতুর্থ দিন শুরু করবেন প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান স্মিথ। তৃতীয় উইকেটে তারা গড়েছেন অবিচ্ছিন্ন ৬৮ রানের জুটি।

এর আগে অস্ট্রেলিয়ান পেসারদের তোপে ২৪৪ রানে অলআউট হয়ে যায় ভারত। ২ উইকেটে ৯৬ রানে তৃতীয় দিন শুরু করে রক্ষণাত্মক ব্যাটিং করছিলেন চেতেশ্বর পূজারা ও রাহানে। যদিও তাদের প্রতিরোধ বেশিক্ষণ টিকেনি। ২২ রান করে কামিন্সের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অধিনায়ক রাহানে।

ক্রিজ আঁকড়ে ধরে খেলতে থাকা নতুন ব্যাটসম্যান হানুমা বিহারি (৪) হয়েছেন রান আউটের শিকার। তার বিদায়ের পর পূজারা-ঋষভ পান্ত জুটিতে বড় স্কোরের স্বপ্ন জেগেছিল ভারতের। কিন্তু পান্ত ৩৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরলে বিপদ বাড়ে সফরকারীদের। পান্তের বিদায়ের পরপরই আরও বড় ধাক্কা। আউট হয়ে যান পূজারা।

ধৈর্যশীল ব্যাটিংয়ে একপ্রান্ত আগলে রাখা এই ব্যাটসম্যান হাফসেঞ্চুরি পূরণ করেই কামিন্সের শিকার। ১৭৬ বলে করা ৫০ রানের ইনিংসটি সাজান ৫ বাউন্ডারিতে। এরপর রবীন্দ্র জাদেজার ২৮ ও অশ্বিনের ব্যাট থেকে ১০ রান এলেও আড়াই শ’র আগেই অলআউট হয়ে যায় ভারত।

সফরকারীদের ব্যাটিং লাইনআপ গুঁড়িয়ে দিতে নেতৃত্ব দিয়েছেন কামিন্স। ২৯ রান দিয়ে এই পেসারের শিকার ৪ উইকেট। ৪৩ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন জশ হ্যাজেলউড। আর মিচেল স্টার্ক পেয়েছেন ১ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:(তৃতীয় দিন শেষে); অস্ট্রেলিয়া: ৩৩৮ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯ ওভারে ১০৩/২ (লাবুশেন ৪৭*, স্মিথ ২৯*, ওয়ার্নার ১৩, পুকোভস্কি ১০; সিরাজ ১/২০, অশ্বিন ১/২৮)। ভারত: প্রথম ইনিংসে ১০০.৪ ওভারে ২৪৪ (গিল ৫০, পূজারা ৫০, পান্ত ২৮, রোহিত ২৬, রাহানে ২২; কামিন্স ৪/২৯, হাজেলউড ২/৪৩)।