ফরাসি কোচের কণ্ঠে স্বস্তি ও আনন্দ

চ্যানেল ৯৬বিডি.কম,
স্পোর্টস ডেস্ক:  স্কোরলাইন দেখে বোঝা যাচ্ছে না, কতটা কঠিন ছিল রিয়াল মাদ্রিদের জয়। গ্রানাদার বিপক্ষে তিন পয়েন্ট তুলে নিতে বেশ ঘাম ঝরাতে হয়েছে তাদের। লড়াইটা যে কঠিন হবে, আগে থেকেই জানতেন কোচ জিনেদিন জিদান। তাই তো জয়ের পর ফরাসি কোচের কণ্ঠে একই সঙ্গে স্বস্তি ও আনন্দ।

আলফ্রেদো দি স্তেফানো স্টেডিয়ামে বুধবার রাতে লা লিগায় ২-০ গোলে জেতা ম্যাচের প্রথমার্ধে দুই-তৃতীয়াংশের বেশি সময় রিয়াল বল দখলে রাখলেও তাদের বেশিরভাগ আক্রমণ ছিল ধারহীন। বরং এই সময়ে বেশ কয়েক বার তাদের রক্ষণে ভীতি ছড়ায় গ্রানাদা। শুরুর বিবর্ণতা ঝেড়ে ফেলে দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে কাসেমিরোর গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। আর যোগ করা সময়ে জয় নিশ্চিত করেন করিম বেনজেমা।

জয়ে পয়েন্টের হিসেবে শীর্ষে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদের পাশেই রয়েছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে জিদানও স্বীকার করে নিলেন প্রথমার্ধে তাদের চাপে রেখেছিল গ্রানাদা। “এটা সত্যিই কঠিন ম্যাচ ছিল। আমরা আগেই বলেছিলাম, ম্যাচটা আমাদের জন্য খুব অস্বস্তিকর হবে এবং তাই হয়েছে।”

“তারা মাঠের ওপরের দিকে উঠে আমাদের চেপে ধরার পরিকল্পনা করেছিল এবং খুব ভালোভাবে তারা তাই করেছে। প্রথমার্ধ খুব কঠিন ছিল। তবে দ্বিতীয়ার্ধে আমরা ভালো খেলেছি এবং জয়টা আমাদের প্রাপ্য।”

বাজে সময় পেছনে ফেলে সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ছয় ম্যাচ জিতল রিয়াল। জিদান অভিনন্দন জানালেন তার খেলোয়াড়দের। “ছেলেরা জানে প্রতিটি ম্যাচে কঠিন মুহূর্ত থাকবে। তবে আমরা সব সময় প্রস্তুত।”

“ছয় ম্যাচ জিতে আমরা খুব খুশি। খেলোয়াড়দের নিয়ে আমি খুব সন্তুষ্ট। কারণ, তারা সমালোচকদের কথায় ভেঙে পড়েনি। তারা যা করেছে তাতে তারা গর্বিত হতে পারে। আমি আমার সকল খেলোয়াড়কে অভিনন্দন জানাতে চাই।”

১৫ ম্যাচে ১০ জয় ও দুই ড্রয়ে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে লিগ টেবিলের দুইয়ে আছে রিয়াল। ১৩ ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আতলেতিকো।